No icon

স্নেহা

গোয়ায় মজলেন অভিনেত্রী স্নেহা

মহুয়া চক্রবর্তী

মিসেস ইন্টারন্যাশনাল কলকাতা খ্যাত অভিনেত্রী স্নেহা চক্রবর্তী তার প্রথম বিবাহবার্ষিকী পালন করলেন গোয়ায়। সঙ্গে ছিলেন তার স্বামী আইটি কর্মী দেবজিৎ পাল। গত মাসের ২৮তারিখ থেকে ২রামার্চ পর্যন্ত তারা ছিলেন গোয়ার পাঁচতারা হোটেল বে১৫ -এ।সেদিন হোটেল লাগোয়া পুলে তারা সময় কাটান। সঙ্গে বাড়তি পাওনা হিসাবে ছিল সমুদ্র সৈকতের আবরণে একান্তে নৈশভোজ।

পরেরদিন গোয়ার মনোরম দৃশ্যে নিজেদের হারাতে তারা বেরিয়ে পড়েন । প্রথমে তারা যান রুইন্স অফ সেন্ট অগাস্টিন। তারপর সেখান থেকে যান গোয়ার বিখ্যাত জলপ্রপাত দুধ সাগর-এ। সেখান থেকে বেসিলিকা চার্চ। ২রামার্চের সকাল ছিল স্নেহার জীবনের এক অন্যতম সকাল। ঠিক এক বছর আগে এইদিনই সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন তিনি।

প্রথম বিবাহ বার্ষিকী বলে কথা তাই বেড়ানোর লিস্ট যে লম্বা হবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।এগোডাফোর্ট দিয়ে দিনের প্রথমটা শুরু করেন অভিনেত্রী স্নেহা। সেখান থেকে তাদের দ্বিতীয় গন্তব্য ছিল ক্যান্ডলিম সমুদ্র সৈকত । সমুদ্রে সৈকতে একান্তে সময় কাটানোর পর তারা যান আরপরা বাজার। গোয়া মানেই একান্তে মনের মানুষের সাথে সময় কাটানোর পপুলার ডেস্টিনেশান। প্রথম বিবাহবার্ষিকীর দিনটির আনন্দ চেটেপুটে নিতে তারা চলে আসেন স্নানবাথ হিসাবে পরিচিত ওজরান সমুদ্র সৈকতে। সেখান থেকে তারা আসেন সালিগাঁও চার্চে। সেদিনের মত বেড়ানোর ইতি টেনে ফিরে যান হোটেল কান্ট্রি ইন সুইটস বাই কার্লসান-এ। অন্তিমদিনটি ছিল ৩রা মার্চ। এদিন তারা বেড়ান সান্তারিকা এবং মোরজিম সমুদ্র সৈকত -এ। হোটেল এলডিয়া সান্তারিয়া ছিল স্নেহার গোয়া ভ্রমণের ইতিকথা।

নিজের প্রথম বিবাহবার্ষিকীর আনন্দ মুখর স্মৃতি র কথা জানতে চাওয়া তিনি জানান,” পর্তুগিজ কলোনিস , এগোডা এবং চাপোড়াফোর্ট -এর সৌন্দর্যে আমি মুগ্ধ। গোয়ার সমুদ্র সৈকত সত্যি ই মনোরম। গোয়ার সী ফুড খুবই উপভোগ করলাম। ওখানকার আবহাওয়া এক কথায়।অসাধারণ।”

আগামীবছর স্নেহার পরবর্তী ডেস্টিনেশান হতে চলেছে হংকং।

 

Comment